প্রকাশিত হয়েছে হাবিবা লাবনীর ‘ফসলী আবেশ’

  © টিডিসি ফটো

কবি ও লেখক হাবিবা লাবনীর কবিতাগ্রন্থ ‘ফসলী আবেশ’ প্রকাশিত হয়েছে। সম্প্রতি সিঁড়ি প্রকাশনী থেকে বইটি প্রকাশিত হয়। বইয়ের দাম রাখা হয়েছে ২০০ টাকা।

‘খেই হারা’, ‘অনুভবে তুমি’, ‘কবিতায় সম্পর্ণন’, ‘ইন্দ্রিয়ের জয়গান’, ‘অন্বেষণ’, ‘মেলিসা’, ‘প্রত্যাবর্তন’, ‘নিস্তরণ’, ‘অনুভূতির রমন’, ‘আত্বচিৎকার’, ‘আদি প্রেম’সহ মোট ৩৫ টিবকবিতা স্থান পেয়েছে এই গ্রন্থে। কবিতাগুলোতে মূলত মানব প্রেম আর প্রকৃতি প্রেমের মাঝে মেলবন্ধন ফুটিয়ে তুলেছেন কবি।

লেখিকার জন্ম ০৯ নভেম্বর ১৯৮৩ সালে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায়। ছোটবেলা থেকেই সাহিত‍্যানুরাগী। তাই ভালোবেসেই বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজী সাহিত‍্যের ওপর এম এ ডিগ্রী লাভ করেছেন। ২৮তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বর্তমানে সরকারের দায়িত্বপূর্ণ পদে কর্মরত আছেন। কাজের পাশাপাশি লেখালেখি তার নিত‍্যবৃত্ত অভ‍্যাস তার। ‘ফসলী আবেশ’ লেখিকার প্রথম কাব‍্যগ্রন্থ।

এছাড়া লেখিকার আরেকটি প্রকাশিত গল্পগ্রন্থ ‘অস্বীকৃত অবলা কাহিনী’। যেটি ২০১৩ সালের অমর একুশে বই মেলায় প্রকাশিত হয়। এক সন্তানের জননী মুক্তমনা এই কবি এবং লেখিকা সাহিত‍্যাঙ্গনে নিজেকে মেলে ধরতে দৃঢ় প্রত‍্যয়ী।

হাবিবা লাবনী বলেন, আমার কাছে একটা বই মানে একজন সন্তান। আমি আমার ছেলেকে যেমন করে আমার ভেতরে তিল তিল করে বড় করে তুলেছি, তেমনি আমার প্রতিটা লেখা, প্রতিটা বই আমার বড় বেশী আবেগের বড় বেশী মায়া দিয়ে সৃষ্টি। আমার সন্তানের চাইতে আমার লেখাকে কোন অংশেই কম করে দেখিনা কখনো।

তিনি বলেন, জীবন চলার পথে বিভিন্ন সময় ভিন্ন ভিন্ন পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছি। জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত কে আমি গুরুত্ব দেই। খুব সুক্ষ ভাবে অনুধাবন করি। আর এর থেকেই আমার লেখার জন্ম হয়। আর একটা একটা লেখা জমে যখন একটা একটা বই হয় এর চেয়ে আনন্দের, এর চেয়ে সুখের আর কী বা আছে একজন কথাশিল্পীর কাছে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ