করোনা উদ্বেগেও খোলা পাবলিক লাইব্রেরি, আসছেন চাকরিপ্রার্থীরাও!

  © সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির পর বিসিএসসহ সরকারি চাকরিপ্রত্যাশীদের পড়ার জন্য জনপ্রিয় একটি গন্তব্য সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগার। শাহবাগে অবস্থিত ওই লাইব্রেরিটি পাবলিক লাইব্রেরি হিসেবেও পরিচিত। সেখানে সব শ্রেণি-পেশার মানুষের যাতায়াতের সুযোগ থাকলেও চাকরিপ্রত্যাশীদের আনাগোনা বেশি।

জানা গেছে, দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি। তবে শাহবাগ পাবলিক লাইব্রেরি এখনো চালু রয়েছে। ফলে সেখানে এখনো বিপুল সংখ্যক চাকরিপ্রত্যাশী পড়াশোনা করতে যাচ্ছেন। এতে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে উদ্বেগ তৈরি হেয়েছে। অবশ্য নিয়মিত সেখানে ৮০০ থেকে এক হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করলেও এখন তিন থেকে চারশ’ জন পড়তে আসছেন বলে জানা গেছে।

লাইব্রেরিতে পড়তে যান এমন শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, গত সোমবার (১৬ মার্চ) লাইব্রেরিতে পড়তে যাওয়া একজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, এমন তথ্য ছড়িয়ে পড়ে। এরপর পুরো লাইব্রেরিতে আতঙ্ক ছড়ায়। মুহুর্তেই ফাঁকা হয়ে যায় গোটা লাইব্রেরি।

আশিকুর রহমান নামে এক চাকরিপ্রত্যাশী দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘করোনাভাইরাস নিয়ে সবার মধ্যেই আতঙ্ক আছে। তবে চাকরি পাওয়ার তাড়নাও আছে। এ কারণে অনেকেই লাইব্রেরিতে পড়তে আসছেন।’ এসময় একজনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আতঙ্ক ছড়ানোর কথাও স্বীকার করেন তিনি। তবে কাকে নিয়ে ওই আতঙ্ক তৈরি হয় সে বিষয়ে তথ্য দিতে পারেননি।

অবশ্য করোনাভাইরাস থেকে লাইব্রেরিতে আগতদের সুরক্ষায় কিছু পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়েছে লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ। তারা জানিয়েছেন, লাইব্রেরিতে হাত ধোয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমও বাড়ানো হয়েছে। তবে লাইব্রেরি বন্ধ করার বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অধীন এ লাইব্রেরি পরিচালিত হয়।

জানতে চাইলে শাহবাগ গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মো. আবুবকর সিদ্দিক দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘আমরা লাইব্রেরিতে সবার সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছি। তবে বন্ধের সিদ্ধান্ত সরকারের। সবাই উদ্বেগের মধ্যে আছে। তবে সরকারি সিদ্ধান্ত না আসলে কিছু করার নেই।’ এজন্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ