বায়তুল মোকাররমে জমে উঠছে ইসলামী বইমেলা

বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ চত্বরে শুরু হয়েছে মাসব্যাপী ইসলামী বইমেলা। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে চলতি মাসের ১০ নভেম্বর এ মেলা শুরু হয়। চলবে আগামী ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত রয়েছে। বিক্রেতারা জানান, এ বছর শুরু থেকেই মেলায় ভালো বিক্রি হচ্ছে। আশা করছি এ বছর আশানুুরুপ বিক্রি হবে।

জানা যায়, এবারের মাসব্যাপী মেলায় মোট ৬১টি স্টল অংশগ্রহণ করেছে। এর মধ্যে দারুস সালাম বাংলাদেশ, এমদাদীয়া লাইব্রেরি, মিনা বুক হাউস, মুসলিম ভিলেজ, মুহাম্মদীয়া কুতুবখানা, মডার্ন প্রকাশনী অন্যতম।

এদিকে মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিটি প্রতিষ্ঠান আকর্ষণীয় ছাড়ে বই বিক্রি করছে। মেলা ঘুরে দেখা যায়, স্টলগুলোতে কুরআন-হাদিস গ্রন্থের পাশাপাশি বিভিন্ন ইসলামী শিক্ষামূলক বিভিন্ন বই। যার মধ্যে রয়েছে নবী-রাসূলদের জীবনী, ইসলামী ব্যক্তিত্বদের জীবনী।

এছাড়া ইসলামে হালাল ও হারাম, বিশ্বনবীর জীবনী, রাসূল সা:-এর ২৪ ঘণ্টার আমল, ইমাম গাজ্জালির জীবন, প্যারাডক্সিকাল সাজিদ ১ ও ২ এবং মরণের আগে ও পরে প্রভৃতি বই এবারের বইমেলায় বিক্রি হচ্ছে।

এ ছাড়া মেলায় স্থান পেয়েছে মিসরের প্রেসিডেন্টকে নিয়ে লেখা বই ‘প্রেসিডিন্ট মুরসি’, ‘লস্ট ইসলামিক হিস্ট্রি’, ‘দ্য ইমারজেন্স অব ইসলামসহ নানান বই।

বই ছাড়াও বিভিন্ন স্টলে টুপি, জায়নামাজ, আতর, মেসওয়াক ও তসবিহ বিক্রি করা হচ্ছে।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারেও মেলায় অংশ নিয়েছে গার্ডিয়ান পাবলিকেশন্স, সমকালীন প্রকাশনী ও সোলেমানিয়া বুক স্টলসহ বেশ কয়েকটি সনামধন্য প্রকশনী।

সোলেমানিয়া বুক স্টল প্রতিষ্ঠানের বিক্রেতা মোহাম্মদ শাহ আলম জানান, ক্রেতাদের আগ্রহ বাড়াতে মেলায় ৪০ শতাংশ ছাড়ে বই বিক্রি চলছে।

তবে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সমালোচনা করে অনেকে বলছেন, তাদের উদ্যোগের অভাবে এ ধরনের মহতী আয়োজন যেভাবে জমার কথা ছিলো সে আঙ্গিকে জমেনি। শুধুমাত্র প্রচারণার অভাবেই ক্রেতা সমাগম আশানুরূপ হচ্ছে না।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ