বঙ্গবন্ধু বইমেলার আয়োজন করেছে ডাকসু সাহিত্য মঞ্চ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে লেখা বিভিন্ন বই নিয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চার দিনব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধু বইমেলা’র আয়োজন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) উপকমিটি ডাকসু সাহিত্য মঞ্চ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) আজ বুধবার থেকে শুরু হয়েছে। আগামী শনিবার (৩১ আগস্ট) পর্যন্ত বইমেলাটি চলবে। সকাল ১১ টায় ডাকসু সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বইমেলাটির উদ্বোধন করেন।

এতে প্রধান অতিথি বাংলাদেশ সরকারের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির সভাপতি মো. আরিফ হোসেন ছোটন, অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী মাজহারুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাহাব উদ্দিন বলেন, 'বঙ্গবন্ধুকে আমরা পাবো না। তবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মৃত্যু নেই। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ আমরা ধরে রাখতে পারবো। সেই কারণে আজকের এই বইমেলার আয়োজন করা হয়েছে। বইমেলার মাধ্যমে আমরা জানতে পারবো যে বঙ্গবন্ধু সারাটি জীবন এই দেশের মানুষের জন্য কষ্ট করেছেন, পাকিস্তানের ২৩ বছরের মধ্যে ১৩ বছর কারাবরণ করেছেন। '৫২ - এর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে '৭১ - এর স্বাধীনতা যুদ্ধ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর যে ত্যাগ এবং বঙ্গবন্ধু যে নেতৃত্বের মাধ্যমে এদেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন, এসকল ইতিহাস আমরা জানতে পারবো।'

তিনি আরও বলেন, 'হাজারো জিয়াউর রহমান, হাজারো মোশতাক এদের এমন কোনো সাহস ছিল না যারা বঙ্গবন্ধুর পর্যায়ে উঠে মানুষের সামনে, কামান-গুলির সামনে দাঁড়িয়ে স্বাধীনতার ডাক দেওয়ার মতো সাহস এই বাঙালি জাতির বঙ্গবন্ধু ছাড়া আর কারও ছিল না।'

অনুষ্ঠানে ডাকসু'র জিএস ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এবং ডাকসু'র এজিএস ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসাইন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া, ডাকসু'র সাহিত্য সম্পাদক মাজহারুল কবির শয়ন, ক্রীড়া সম্পাদক শাকিল আহমেদ তানভীর, সদস্য রাকিবুল হাসান, রাকিবুল ইসলাম ঐতিহ্য, তানভীর হাসান সৈকত, মাহমুদুল হাসান, রাইসা নাসের, সাবরিনা ইতি ও তিলোত্তমা শিকদার উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ