মাছ রপ্তানি ও উৎপাদন গবেষণায় চীনের সঙ্গে চুক্তি করেছে বাকৃবি

  © টিডিসি ফটো

বাংলাদেশে ইলিশ ও শোল মাছের উৎপাদন ও রপ্তানি নিয়ে গবেষণা এবং উন্নয়নে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ এবং চীনের পার্ল রিভার ফিশারিজ রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

সোমবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের সম্মেলন কক্ষে এই চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়।

মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. আহসান বিন হাবিবের সভাপতিত্বে চুক্তি স্বাক্ষর এবং আলোচনা অনুষ্ঠানে এবং চীনের পার্ল রিভার ফিশারিজ রিসার্চ ইনস্টিটিউটের সহকারী পরিচালক অধ্যাপক ড. জিনপিং জুহুসহ প্রতিষ্ঠানের ৫ জন গবেষক এবং চীনের নিউট্রিয়েরা গ্রুপের পরিচালক ইয়াং ইয়োং উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে অ্যাকোয়াকালচার বিভাগের প্রধান অধ্যাপক মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন, ফিশারিজ বায়োলজি ও জেনেটিক্স বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ড. এ কে শাকুর আহম্মদ, ফিশারিজ টেকনোলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. নূরুল হায়দার সহ অনুষদের শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে সমন্বয়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অ্যাকোয়াকালচার বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মাহফুজুল হক। অনুষ্ঠানে ইলিশ নিয়ে বিভিন্ন গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়।

অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মাহফুজুল হক বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হলেও বিদেশে মাছ রপ্তানিতে অনেক পিছিয়ে। তাই ইলিশসহ শোল জাতীয় মাছ রপ্তানিতে বাংলাদেশকে এগিয়ে যেতে হলে নতুন নতুন গবেষণা ও যেসব দেশ মাছ রপ্তানিতে এগিয়ে তাদের সাহায্য গুরুত্বপূর্ণ। চীন পৃথিবীর এক নম্বর মাছ রপ্তানিকারক দেশ। অতএব তাদের সাহায্যে নতুন গবেষণা বাংলাদেশ থেকে মাছ রপ্তানির নতুন দিক উন্মোচন করবে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ