শেকৃবির আবাসিক হলে খাবার পানিতে পোকা

  © ফাইল ছবি

রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) নবাব সিরাজউদ্দৌলা হলে খাবার পানিতে পোকার পাওয়া গেছে বলে অভিযোগ করেছে সেখানকার আবাসিক শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার (২৩ আগস্ট) শিক্ষার্থীরা দুপুরে ঐ হলের ক্যান্টিনের খাবার পানির জগে জীবিত পোকার দেখতে পাওয়ার কথা জানান।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীরা জানায়, জুম্মার নামায পর ক্যান্টিনে দুপুরের খাবারের জন্য গেলে সেখানে খাবার পানির জগের নীচে জীবিত পোকা ভাসতে দেখা যায়। পরে সেটি ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দিয়ে দেয়া হয়।

এ ব্যাপারে ওই হলের ক্যান্টিন কর্তৃপক্ষ জানান, ছাত্ররা প্রতিবেলা খাবার আগে আমরা সকল আসবাবপত্র ভালো ভাবে পরিষ্কার করি। ক্যান্টিনের মধ্যে ফিল্টার সংযুক্ত যে স্থান থেকে সকলে খাবার পানি সংগ্রহ করে সেখান থেকেই আমরা পানি নিয়ে আসি। এখন ফিল্টার হওয়া পানির মধ্যে যদি পোকা থাকে তাহলে আমাদের কি করার থাকতে পারে!

হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা জানান, যেখানে বিশুদ্ধ কিংবা স্বচ্ছ পানির জন্য ট্যাংকগুলোতে হল কর্তৃপক্ষের নির্দিষ্ট সময় অন্তর ব্লিচিং পাউডার দিয়ে পরিষ্কার করার কথা, সেখানে পুরো বছরে একবারও ট্যাংকগুলো পরিষ্কার করা হয়না। অনেক পানির ট্যাংকগুলোর ঢাকনা পর্যন্ত নেই। এসব পানি ব্যবহারের ফলে শিক্ষার্থীরা প্রতিনিয়তই বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।

শিক্ষার্থীরা বলছে, সবচেয়ে শঙ্কার বিষয় হচ্ছে এই ট্যাংকের পানিই আমাদের নুন্যতম পরিশোধনের মাধ্যমে পান করানো হচ্ছে। আবার যে যন্ত্র দ্বারা পানি পরিশোধন করা হয় সেটা আদৌও কাজ করে কিনা তা নিয়েও শঙ্কা রয়েছে।

জানতে চাইলে ঐ হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইছাক বলেন, বিষয়টা চিন্তার। শিক্ষার্থীদের সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা আমাদের দায়িত্ব। আমি দ্রুত সমস্যা সমাধানের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ