কুবি ভর্তিযুদ্ধ শুরু কাল

  © ফাইল ফটো

‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে আগামীকাল শুরু হচ্ছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষা। শুক্রবার (৮ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। একই দিনে বিকাল ৩টা থেকে ‘বি’ ইউনিটের এবং শনিবার (০৯ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডি এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সমন্বয়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব ও রেজিস্ট্রার ড. মো. আবু তাহের।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) বিকেল চারটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় পরীক্ষার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান তিনি।

এবারের ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসসহ মোট ১৯টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার্থীকে অবশ্যই এস.এস.সি/এইচ.এস.সি/সমমানের মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড, ২ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি ও ডাউনলোডকৃত প্রবেশপত্রের ২টি রঙ্গীন প্রিন্ট কপি পরীক্ষার হলে নিয়ে আসতে হবে। কোন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্র্রে মোবাইল ফোন, মানিব্যাগ, সানগ্লাস, সিম/ক্রেডিট কার্ড বা কোন প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস সঙ্গে নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। পরীক্ষা চলাকালীন পরীক্ষা কেন্দ্রে তালিকাভুক্ত সংশ্লিষ্ট বিশেষ দায়িত্বরত ব্যক্তি ব্যতিত অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবে না।

এছাড়া নিরাপত্তা নিশ্চিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির মোট ৫টি টিম কাজ করবে বলে জানিয়েছেন বিশ্বদ্যিালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন। তিনি বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ৪ জন ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন যেন শিক্ষার্থীদের খাবার কিংবা যানবাহনে ভোগান্তি না পোহাতে হয়। এছাড়া যে কোন ধরণের অনিয়ম ঠেকাতেও বদ্ধ পরিকর তারা।’

নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কেন্দ্রের মূল ফটক দিয়ে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের সময় তাদের তল­াশি করা হবে। এছাড়া কেন্দ্র ও বাহিরে আশ-পাশের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় অতিরিক্ত পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা, র‌্যাব ও সাদা পোশাকে নিরাপত্তা সদস্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনসিসির ৮০জন এবং রোভার স্কাউটের ৮০ জন সদস্য নিয়োজিত থাকবে।

এদিকে ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের সহায়তায় মাঠে থাকবে শাখা ছাত্রলীগ। হলগুলোতে থাকার ব্যবস্থা, শিক্ষার্থীদের সাথে থাকা মােবাইল, মানিব্যাগ, হাতঘড়ি, কাধের ব্যাগসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিরাপদে রাখার জন্য বিনাম‚ল্যে বিশেষ বুথ, জয় বাংলা বাইক সার্ভিস, ৫০০০ চেয়ারের অভিভাবক কর্ণারসহ বিশ্ববিদ্যালয়ে যেন কোন ভতিচ্ছু র‌্যাগিং কিংবা মানসিক ভোগান্তির শিকার না হয় সে বিষয়ে সজাগ থাকবে ছাত্রলীগ। এছাড়া শিক্ষার্থীদের সাথে অনাকাঙ্খিত কোন ঘটনা ঘটলে তা জানানাের জন্য প্রতিটি কেন্দ্রে অভিযােগ বক্স স্থাপন করেছে তারা।

উল্লেখ্য, এ শিক্ষাবর্ষে ছয়টি অনুষদের অধীনে মোট ১ হাজার ৪০টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৬৮ হাজার ৭৭ জন শিক্ষার্থী। ‘এ’ ইউনিটে (বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদ) সাতটি বিভাগে মোট ৩৫০টি আসনে ভর্তির জন্য আবেদন জমা পড়েছে ২৬ হাজার ৯৭৫ টি। ‘বি’ ইউনিটে (কলা, সামাজিক বিজ্ঞান ও আইন অনুষদ) আটটি বিভাগে ৪৫০টি আসনের বিপরীতে ২৮ হাজার ২৯৫ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে (ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ) চারটি বিভাগে ২৪০টি আসনের বিপরীতে ১২ হাজার ৮০৭ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন। ‘এ’ ইউনিটে একটি আসনের বিপরীতে ৭৭ জন, ‘বি’ ইউনিটে ৬৩ জন এবং ‘সি’ ইউনিটে ৫৩ জন প্রতিদ্ব›িদ্বতা করবে।

এছাড়া ভর্তি পরীক্ষার ইউনিট ভিত্তিক সময়স‚চি, আসন বিন্যাস ও সংশ্লিষ্ট তথ্য যথাসময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইট www.cou.ac.bd ও হেল্পলাইন ০১৫৫৭-৩৩০৩৮১/০১৫৫৭-৩৩০৩৮২ এ জানা যাবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ