ভর্তিচ্ছুদের হলে থাকায় সমস্যা দেখছে বেরোবি প্রশাসন

  © ফাইল ফটো

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আসন্ন ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষ ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের আবাসিক হলগুলো খোলা থাকলেও ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন তিনটি আবাসিক হলে শুধুমাত্র আবাসিক শিক্ষার্থীরা অবস্থান করতে পারবেন। ভর্তিচ্ছুদের হলে থাকায় সমস্যা দেখছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এনিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে চলছে চাপা ক্ষোভ।

আগামী ১০ নভেম্বর থেকে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ছাড়া কেউ বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে প্রবেশ করতে পারবেনা বলে সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে। আবাসিক শিক্ষার্থী নিরূপণ করতে আবাসিক প্রতিটি শিক্ষার্থীর জন্য আইডি কার্ডের ব্যবস্থা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আইডি কার্ড না থাকলে কোন শিক্ষার্থী কিংবা সাংবাদিকরাও পরীক্ষা চলাকালীন ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারবেনা।

এসময় কোন ভর্তিচ্ছুও হলে আসতে পারবেনা। আবাসিক শিক্ষার্থীরা হলে আসতে পারলেও দেওয়া হয়েছে অনেক শর্ত। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশ পথ দিয়ে ক্যাফেটেরিয়া হয়ে সরাসরি হলে আসতে হবে। এসময় একাডেমিক ভবনগুলোর দিকে কেউ যেতে পারবেনা। কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা কমিটির ৪র্থ সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

জানা যায়, বিগত বছরগুলোতে ভর্তি পরীক্ষার সময় ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীসহ সাধারণ কেউ প্রবেশ নিষিদ্ধ ছিলো। গত ভর্তি পরীক্ষার সময় হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা হলের প্রভোস্টকে আটকে রেখে আন্দোলন করলে পরের বছর (এবছর) থেকে হল খোলা রাখা হবে বলে আশ্বাস দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সেই আশ্বাসের ভিত্তিতে এবার হলগুলো খোলা রাখার সিদ্ধান্ত দিলেও দেওয়া হয়েছে শর্ত।

শিক্ষার্থীরা জানান, ভর্তি পরীক্ষার সময় নিজ এলাকা থেকে অনেক ছোট ভাই-বোন পরীক্ষা দিতে আসে। এসময় পরীক্ষার্থী দিয়ে ভরে যায় পুরো রংপুর শহর। জায়গা থাকেনা আবাসিক হোটেল এবং মেসগুলোতে। অনেক কষ্ট পেতে হয় ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীদের। যখন নিজেরই থাকার জায়গা থাকেনা তখন তাদেরকে রাখা অনেক কষ্ট হয়।

দেলোয়ার হোসেন নামে এক শিক্ষার্থী তার ফেসবুক পোস্টে ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, ‘অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে যখন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের বিনামূল্যে থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়, তখন আমাদেরও বিশ্ববিদ্যালয়ে হলগুলোতে যেন পরীক্ষার্থী/অভিভাবক না থাকতে পারে তার জন্য কঠোর নিয়ম করা হয়।’

তানভীর আহমেদ নামে এক শিক্ষার্থী তার পোস্টে আসন্ন ভর্তি পরীক্ষায় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মানবিক বিষয়টি বিবেচনার অনুরোধ জানিয়েছেন।

শহীদ মুখতার ইলাহী হলের ছাত্রলীগ সভাপতি হাসান আলী তার ফেসবুক পোস্টে বলেছেন, অতীতের ন্যায় হল বন্ধ না থাকলেও সকল প্রকার গেস্ট প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে প্রশাসন, যা কাম্য নয়। প্রশাসনের কাছে বিনয়ের সাথে বলবো হলে গেস্ট প্রবেশের উপর যে নিষেধাজ্ঞা তা পুনর্বিবেচনা করা হোক। শিক্ষার্থীদের আর বলি পাঠা বানানোর চেষ্টা করবেন না হিতের বিপরীতও হতে পারে।

বঙ্গবন্ধু হলের ছাত্রলীগ সভাপতি পোমেল বড়ুয়া জানান, বিষয়টি অত্যন্ত মানবিক। এ বিষয়ে প্রশাসনকে পুনর্বিবেচনা করার অনুরোধ করছি। এ বিষয়ে দুই হলের সভাপতি কথা বলে সিদ্ধান্ত নিবেন বলেও জানান তিনি।

বঙ্গবন্ধু হল প্রভোস্ট তাবিউর রহমান প্রধান বলেন, আগামী ৮ নভেম্বর তারিখ থেকে প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ করা হবে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে আরেকটা মিটিং হবে সেখানে এ বিষয়ে পূর্নাঙ্গ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ