স্বপ্ন যখন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মানবিক ইউনিট

দ্বিতীয় বারের মত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় ইউনিট-২ তথা মানবিক ইউনিটের প্রস্তুতি পরামর্শ দিয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী- এম এম মুজাহিদ উদ্দীন

পাঠশালা থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হওয়া দেশের একমাত্র সর্বোচচ বিদ্যাপীঠ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। ঢাকার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিসিএস ,ব্যাংক,কর্পোরেট চাকরি,বিদেশে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণায় ঈর্ষণীয় সাফল্য রাখছে। ফলে অনেকেই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর হওয়ার স্বপ্ন দেখছো। তাই তোমাদের জন্য আজকে ইউনিট-২ তথা মানবিক ইউনিটে নিয়ে কিছু কথা বলব।

আসন সংখ্যা ও বিষয়: ইউনিট-২ তথা মানবিক ইউনিটে যেসকল বিষয় রয়েছে সেগুলোতে মোট আসন রয়েছে ১২৭০টি। ১২৭০টি আসন থাকলেও মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ রয়েছে মাত্র ৮৫০টি আসন। আর বাকী আসনগুলো বিজ্ঞান ও বাণিজ্য ইউনিটের শিক্ষার্থীরা দখল করবে। তাহলে বুঝতেই পারছো মেধা তালিকায় নিজের নাম দেখতে চাইলে ৮৫০জনের মধ্যে থাকতেই হবে। আর পছন্দের বিষয়ে পড়তে চাইলে মেধায় প্রথম সারিতে থাকতে হবে।

মানবিক ইউনিটে মোট ১৭টি বিষয়ে ¯œাতক করা যাবে। সেগুলো হলো- বাংলা-৬০টি আসন, ইংরেজি-৪০টি, ইতিহাস-৭০টি, ইসলামের ইতিহাসও সংস্কৃতি-৭০টি, ইসলামিক স্টাডিজ-৭০টি, দর্শন-৬০টি, আইন-৩০টি, ভূমি ব্যবস্থাপনাও আইন-৪০টি, শিক্ষাও গবেষণা(আইইআর)-২৫টি, ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ(আইএমএল)-২০টি, অর্থনীতি-৩৫টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান-৫০টি, সমাজবিজ্ঞান-৬০টি, সমাজকর্ম-৬০টি, নৃবিজ্ঞান-৬০টি, গণযোগাযোগও সাংবাদিকতা-৬০টি, লোকপ্রশাসন-৪০টি। এই সর্বমোট ৮৫০টি আসন মানবিক বিভাগ থেকে যারা মাধ্যমিকও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে তাদের জন্য।

যেভাবে পরীক্ষা হবে: ইউনিট-২ তথা মানবিক ইউনিটের পরীক্ষা আগামী ২০-০৯-১৯ তারিখ ,রোজ শুক্রবার, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ১ ঘন্টা ৩০ মিনিট ধরে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। লিখিত পরীক্ষায় বাংলা,ইংরেজি,বাংলাদেশ ও সমসাময়িক বিশ্ব (শিল্প সাহিত্য অথবা আর্থসামাজিক বিষয়ে বাংলা অথবা ইংরেজিতে সংক্ষেপে লিখতে হবে) এবং সাধারণ বুদ্ধিমত্তা। এতে পূর্ণমান থাকবে ৭২। পরীক্ষার হলে খাতা দেয়া হবে সেখানে নির্দিষ্ট জায়গায় নির্দেশিত প্রশ্নের উত্তর লিখতে হবে। এক্ষেত্রে কাটাকাটি করে অন্যত্রে লেখার সুযোগ নাই । অতিরিক্ত লিখে প্রশ্নের উত্তর দীর্ঘ করার ও সুযোগ নাই। একটা প্রশ্নের উত্তর লেখার জন্য খাতায় যতটুকু জায়গা বরাদ্দ থাকবে ততটুকু জায়গাতেই লিখতে হবে। এজন্য শুরু থেকেই সতর্কতার সাথে উত্তর লিখতে হবে।

যেভাবে প্রস্তুতি নিবে:
বাংলা: বাংলায় ২৪ নম্বরের জন্য সর্বমোট ৬টি প্রশ্ন থাকবে। যার প্রতিটির মান ৪। কোনো অপশন থাকবেনা। প্রতিটি প্রশ্নের জন্যই নম্বর বরাদ্দ করা থাকবে। বাংলায় প্রস্তুতির জন্য উচ্চ মাধ্যমিকের বাংলা প্রথম পত্রের কবিতা ও গদ্যে বুঝে বুঝে পড়তে হবে। এখান থেকেই সংক্ষিপ্ত অনুধাবনমুলক প্রশ্ন করা হয়। বাংলা ব্যাকরণ থেকেও ২/৩টি প্রশ্ন এসে থাকে। সাধারণত মৌলিক বিষয়গুলো থেকেই প্রশ্ন করা হয়ে থাকে।

ইংরেজি: ইংরেজিতে ২৪ নম্বরের জন্য সর্বমোট ৬টি প্রশ্ন থাকবে। যার প্রতিটির মান ৪ । এখানে Translation,proverb, Synonyms and Antonyms,Idioms and Phrases,preposition,analogy, সমসাময়িক বিষয়ের উপর Short paragraph,short report প্রভৃতি টপিক থেকে প্রশ্ন আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ ও সমসাময়িক বিশ্ব এবং সাধারণ বুদ্ধিমত্তা: বাংলাদেশ ও আন্তজার্তিক বিষয়ের সমসাময়িক ও গুরুত্বপূর্ণ আলোচিত ইস্যুগুলোর উপর সংক্ষিপ্তভাবে লিখতে আসতে পারে। সমসাময়িক সময়ে ঘটে যাওয়া বিষয়ের উপর মতামতও লিখতে আসতে পারে। এজন্য নিয়মিত দৈনিক পত্রিকা পড়া যেতে পারে। আর সাধারণ বৃদ্ধিমত্তার ক্ষেত্রে নিজের বৃদ্ধিমত্তাকেই কাজে লাগাতে হবে। কর্তৃপক্ষ দেখতে চান আসলে তোমার বুদ্ধিমত্তা কেমন! এক্ষেত্রে প্রস্ততির জন্য তোমরা বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিগত সালের মানসিক দক্ষতার প্রশ্নও বিসিএস প্রিলি পরীক্ষায় আসা মানসিক দক্ষতার প্রশ্নগুলো চর্চা করতে পারো। আশাকরি এগুলো থেকেই প্রশ্ন কমন পাবে।

সর্বপরি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মানবিক ইউনিটের বিগত বছরের প্রশ্নটি সংগ্রহ করে দেখতে পারো। তাহলে আশাকরি প্রশ্নের ধরণও প্রস্তুতি সম্পর্কে আরো ভালো ধারণা পাবে। তোমাদের পদচারণায় মুখরিত হওয়ার অপেক্ষায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। শুভ কামনা রইল।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ