ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে বড় পরিবর্তন

নতুন করে বড় ধরণের পরিবর্তন আসছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায়। নতুন পদ্ধতিতে দেড় ঘণ্টায় এমসিকিউ অংশের ৭৫ নম্বর এবং লিখিত ৪৫ নম্বরের উত্তর করতে হবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের।

বুধবার (২৪ জুলাই) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে প্রথম বর্ষ ভর্তি কমিটির সাধারণ সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান সভাপতিত্ব করেন। আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও কর্মকর্তারা।

সভায় উপস্থিত একাধিক সূত্রে জানা যায়, প্রতি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার সময় হবে দেড় ঘণ্টা। এমসিকিউ অংশে ৬০ প্রশ্নের জন্য সময় ৫০ মিনিট। প্রতিটি প্রশ্নের মান ১.২৫ সর্বমোট ৭৫। পাস মার্ক ৩০। আর লিখিত অংশে সময় ৪০ মিনিট। পাস মার্ক ১২।

আরও জানান, এমসিকিউ পরীক্ষায় ৩০ নম্বর পেলে লিখিত পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করা হবে। কেউ যদি এমসিকিউ অংশে পাস মার্কের বেশি পাওয়ার পরও লিখিত পরীক্ষায় ১২ নম্বরের কম পায় তাহলে সে ভর্তির অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। লিখিত অংশের জন্য বাংলা ও ইংরেজির বোর্ড বই পড়তে হবে। এ অংশে সাধারণ জ্ঞান থেকে কোনো প্রশ্ন আসবে না। মোট ১২০ নম্বরের পরীক্ষার সঙ্গে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার জিপিএ যোগ করে সর্বমোট ২০০ নম্বরের ভিত্তিতে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

এছাড়া প্রতিবন্ধী কোটার ক্ষেত্রে দৃষ্টি বাক-শ্রবণ ও শারীরিক প্রতিবন্ধী বিষয়টি যুক্ত করা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষার ফরমের মূল্য ৪৫০ টাকা।

ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার অনলাইনে আবেদনের তারিখ ঘোষণা


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ